বয়হুড (Boyhood) অসাধারণ একটা মুভি না দেখলে মিস

by
Mar 27, 2015
132 Views
Comments Off on বয়হুড (Boyhood) অসাধারণ একটা মুভি না দেখলে মিস
0 0

পরিচালকঃ রিচার্ড লিঙ্কলেটার

চিত্রনাট্যঃ রিচার্ড লিঙ্কলেটার

বিভাগঃ ড্রামা (Drama)

দেশঃ যুক্তরাষ্ট্র

ভাষাঃ ইংরেজি

মুক্তির তারিখঃ ১১ জুলাই, ২০১৪ (যুক্তরাষ্ট্র)

রান টাইমঃ ১৬৫ মিনিট

অভিনয়ঃ

এলা কোলট্রেন (ম্যাসন)

প্যাট্রিসিয়া আর্কেট (মা/অলিভিয়া)

লরেলেই লিঙ্কলেটার (সামান্থা)

ইথান হক (বাবা/ম্যাসন সিনিয়র)

 

রেটিং:

IMDb  —  8.1/10

Rotten Tomatoes —  98%

Metacritic —  100%

রিভিউঃ

বয়হুড-এর প্রথম শটে একটি মেঘাচ্ছন্ন আকাশে মুভিটির নাম ভেসে উঠে। দ্বিতীয় শটে একটি ছেলে তার একটি হাত মাথার নিচে রেখে আকাশের পানে অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকে আর আরেকটি হাত মাটির উপর সোজা করে ছড়িয়ে রাখে। শান্ত চোখ, বোঁচা নাক এবং ভরাট গালের সুশ্রী এক বালক। এই সেই মুখ যেটির মধ্য দিয়ে আপনি একজন বালকের চোখে পৃথিবীটা দেখবেন তার বড় হওয়ার সাথে সাথে। বয়হুড-এর ১২ বছর ধারাবাহিক দৃশ্যায়নে ম্যাসন নামক চরিত্রটি ফুটিয়ে তোলা হয়েছে, যেটি কিনা তার ৬ বছরের বয়স থেকে শুরু হয়ে ১৮ বছর বয়সে গিয়ে শেষ হয়। যেখানে সে স্কুলে যায়, তার বোন সামান্থার সাথে ঝগড়া করে; এবং সে আরো দেখে তার মা-এর(অলিভিয়া) সংগ্রামগুলি যেগুলি কিনা কাজ এবং মানুষের সাথে যখন বিল পরিশোধ, বাড়ি পরিবর্তন ও কতিপয় ডিগ্রি অর্জনের কথা চলে আসে। অলভিয়ার একাকী অভিভাবকত্ব, তার সাবেক স্বামীর(ম্যাসন সিনিয়র) উদাসীনতা; এধরণের এরা হয়তো আপনারই চেনাজানা লোকজন অথবা আপনি নিজেই! বয়হুড-এ লিঙ্কলেটার সেসব বিষয়কে দেখিয়েছেন যেগুলি অধিকাংশ মুভিতে সচরাচর এড়িয়ে যাওয়া হয় এবং সেটি হলো – “সময়ের পরিবর্তনশীলতা” – এটি খুবই হৃদয়গ্রাহী এবং শিরোনামযোগ্য বাক্য। ২০০২ সাল থেকে শুরু করে তিনি তার চার প্রধান চরিত্রগুলিকে প্রতি বছর ৩ থেকে ৪ দিনের শুটিং-এর জন্যে একত্র করেছেন এবং সবকটি চরিত্রের উপর বিস্তর গবেষণা করেছেন। তিনি আগের শুট করা দৃশ্যগুলি বার বার দেখে পরবর্তীতে কাহিনী কী হতে যাবে টা ঠিক করেছেন। ১২ বছরের ছন্দময় জীবনপ্রবাহটি তৈরি করতে লিঙ্কলেটারকে খুব সতর্কতার সাথে কাজ করতে হয়েছে। বয়হুড-এর মুগ্ধ করা অনেক ঘটনাবলি রয়েছে; আনন্দ-উৎসব, ঝগড়া-ঝাটি, হাসি-কান্না যেগুলি কিনা আমাদের প্রাত্যহিক জীবনেরই অংশ। বাস্তব জীবনের এক জীবন্ত দলিল বয়হুড মুভিটি। ১৬৫ মিনিটের মুভিটি দেখে আপনি আপনার জীবনকে আরো ভালোভাবে বুঝতে সক্ষম হবেন। মুভিটি উপভোগ করবেন আশা করি।

মুভি ডাউনলোড লিঙ্কঃ

টরেন্ট (720p and 1080p)

ডাইরেক্ট

সাবটাইটেল ডাউনলোড লিঙ্কঃ

সাবটাইটেল

সাউন্ডট্র্যাক ডাউনলোড লিঙ্কঃ

টরেন্ট

ডাইরেক্ট

তথ্যসূত্রঃ উইকিপিডিয়া, দ্য নিউ ইয়র্ক টাইম্‌স।

Article Categories:
মুভি