বিদেশে পড়তে চান? জেনে নিন কিছু স্কলারশীপ সম্পর্কে

by
May 14, 2015
90 Views
Comments Off on বিদেশে পড়তে চান? জেনে নিন কিছু স্কলারশীপ সম্পর্কে
0 0

আমাদের  অনেকেরই স্বপ্ন থাকে বিদেশে পড়ালেখা করার। কারো স্বপ্ন থেকে আমেরিকায় পড়াশোনা করার,কেউ যেতে চায় জার্মানী, কেউ যেতে চায় কানাডা, জাপান, অস্ট্রেলিয়া বা যুক্তরাজ্যে। তবে সঠিক তথ্য ও দিক নির্দেশনার অভাবে অনেকেরই আর বিদেশে যাওয়া হয়ে উঠে না। কারণ এসব দেশে যেতে হলে আপনাকে পরীক্ষার মধ্যমে যোগ্যতা অর্জন করতে হয়। কিন্তু তথ্যের অভাবে এবং স্কলারশীপ সম্পর্কে পরিপূর্ণ ধারণা না থাকায় প্রস্তুতি থেকে শুরু করে অনেক কিছুতেই আমাদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়। বিদেশে পড়ালেখা করার সুযোগ করে দেয় এমন অনেক ধরণের স্কলারশীপ রয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি নিয়ে কিছু তথ্য দেয়া হলো –

১। যুক্তরাষ্ট্রঃ Fulbright scholarship – এটি যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক প্রদত্ত সরকারি স্কলারশীপ। নামটাতে যেমন Full রয়েছে, কাজও ফুল। যাতায়াত থেকে শুরু করে, থাকা-খাওয়া, মেডিকেল, লিভিং অফ কস্ট বলতে গেলে সব দিয়ে থাকে। এছাড়া অন্যান্য অনেক বেসরকারি স্কলারশীপও রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে Humphrey Fellowship Program। প্রতিটি ভালো ভালো বিশ্ববিদ্যালয়ের আছে বেশ কিছু স্কলারশীপ। যেমন –

(a) American University Scholarships

(b) Cornell University Scholarships

(c) Michigan State University International Scholarships

(d) Arkansas University Scholarships

(Google-এ ক্লিক করলেই সব তথ্য চলে আসবে)।

২। জাপানঃ জাতীয় স্কলারশীপের নাম – Japanese Government Scholarship (Monbukagakusho: Mext); আন্ডারগ্রাড, পোস্টগ্রাড এবং পিএইচডি-র জন্যে এই স্কলারশীপ। পোস্ট ডক্টরাল ফেলোশিপের জন্যে – Japan Society for the Promotion of Science (JSPS) Fellowships। এছাড়াও প্রায় প্রতিটি ভালো বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব স্কলারশীপ রয়েছে। যেমন – টোকিও ইউনিভার্সিটির আছে ১০০-১৫০টি স্কলারশীপ; যার নাম – University of Tokyo Fellowships।

৩। জার্মানীঃ জাতীয় স্কলারশীপের নাম – DAAD Scholarship (German Academic Exchange Service)। প্রতিটি ভালো বিশ্ববিদ্যালয়েও অনেক স্কলারশীপ রয়েছে। যেমন – Universität Leipzig -এ রয়েছে BuildMoNa Scholarship যেটি কিনা পিএইচডি-র জন্যে। পোস্ট ডক্টরাল ফেলোশিপের জন্যে – Humboldt Research Fellowship (AvH)।

৪। ব্রিটেনঃ জাতীয় স্কলারশীপের নাম – Commonwealth Scholarship and Fellowship Plan (CSFP), British Chevening Scholarships (বিদেশী শিক্ষার্থীদের জন্যে) এবং University Research Scholarships (URS)। ব্রিটেনের প্রতিটি ভালো ভালো বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে বেশ কিছু স্কলারশীপ। যেমন – Nottingham University – তে রয়েছে Dean’s Award, Nottingham Research Fellowships।

৫। অস্ট্রেলিয়াঃ জাতীয় স্কলারশীপের নাম – International Postgraduate Research Scholarships (IPRS); এটি মাস্টার্স এবং পিএইচডি-র জন্যে।

৬। কানাডাঃ জাতীয় স্কলারশীপের নাম – Vanier Canada Graduate Scholarships Program; এটি পিএইচডি-র জন্যে। NSERC (National Science and Engineering Research Council of Canada) Fellowship – এটি মাস্টার্স এবং পিএইচডি-র জন্যে। পোস্ট ডক্টরাল ফেলোশিপের জন্যে – Banting Post Doctoral Fellowships। এছাড়া প্রতিটি প্রফেসারের রয়েছে নিজস্ব ফান্ডিং।

৭। ইউরোপঃ European Union (EU) স্কলারশীপ মাস্টার্স এবং পিএইচডি-র জন্যে, The Erasmus Mundus Scholarship Programme। বেলজিয়াম – VLIR-OUS স্কলারশীপ বিদেশী শিক্ষার্থীদের মাস্টার্সের জন্যে ; VLIR-OUS

৮। সুইডেনঃ Sweden Government Scholarships – বিদেশী শিক্ষার্থীদের জন্যে এবং The Erasmus Mundus programme-ও রয়েছে।

৯। মালয়েশিয়াঃ জাতীয় স্কলারশীপের নাম – Malaysia International Scholarship (MIS); এটি মাস্টার্স, পিএইচডি এবং পোস্ট ডক্টরেট-এর জন্যে।

১০। কোরিয়াঃ জাতীয় স্কলারশীপের নাম – Korean Government Scholarship Programme (KGSP) আন্ডারগ্রাড এবং পোস্টগ্রাডদের জন্যে।

প্রতিটি ওয়েবসাইটে আবেদনের সময়কাল এবং প্রফেসারদের  ইমেইল রয়েছে। চাইলে প্রফেসারদের ইমেইল করতে পারেন। ভয়ের কোন কারণ নেই, নির্ভয়ে ইমেইল করবেন প্রফেসারদের। তারা সময় পেলে এবং বিষয়টি উপযুক্ত হলে অবশ্যই উত্তর দিবেন।

সবার জন্য শুভ কামনা রইল।

পরবর্তীতে যুক্তরাষ্ট্র এর ফুলব্রাইট নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

ধন্যবাদ সবাইকে।

Article Categories:
উচ্চশিক্ষা