মহাদেশ পরিচিতি – আফ্রিকা

by
Nov 11, 2015
104 Views
Comments Off on মহাদেশ পরিচিতি – আফ্রিকা
0 0
  • আফ্রিকা আয়তন ও জনসংখ্যা উভয় বিচারে বিশ্বের ২য় বৃহত্তম মহাদেশ।
  • পার্শ্ববর্তী দ্বীপগুলোকে গণনায় ধরে মহাদেশটির আয়তন ৩০,২২১,৫৩২ বর্গ কিলোমিটার (১১,৬৬৮,৫৯৮ বর্গমাইল) বিশ্বের মোট ভূপৃষ্ঠতলের ৬% ও মোট স্থলপৃষ্ঠের ২০.৪% জুড়ে অবস্থিত।
  • আফ্রিকা মহাদেশে ৫৪ টি দেশ রয়েছে যেখানে ১০০ কোটিরও বেশি মানুষ, অর্থাৎ বিশ্বের জনসংখ্যার ১৪% বসবাস করে।
  • মহাদেশটির উত্তরে ভূমধ্যসাগর, উত্তর-পূর্বে সুয়েজ খাল ও লোহিত সাগর, পূর্বে ভারত মহাসাগর, এবং পশ্চিমে আটলান্টিক মহাসাগর। উত্তর-পূর্ব কোনায় আফ্রিকা সিনাই উপদ্বীপের মাধ্যমে এশিয়া মহাদেশের সাথে সংযুক্ত।
  • আফ্রিকার প্রায় মাঝখান দিয়ে বিষুবরেখা চলে গেছে। তবে এর বেশির ভাগ অংশই ক্রান্তীয় অঞ্চলে অবস্থিত।
  • ইউরোপীয় বণিকেরা লক্ষ লক্ষ আফ্রিকানদের দাস হিসেবে উত্তর আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা ও ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের প্ল্যান্টেশনগুলিতে পাঠায়। ১৯শ শতকের শেষ নাগাদ ইউরোপীয়রা প্রায় সমস্ত আফ্রিকা মহাদেশ দখল করে এবং একে ইউরোপীয় উপনিবেশে পরিণত করে।
  • ১৯৫০ এবং ১৯৬০-এর দশকের মধ্যে প্রায় সমস্ত আফ্রিকা স্বাধীনতা অর্জন করে।
  • সাহারা মরুভূমির মাধ্যমে মহাদেশটিকে দুইটি অংশে ভাগ করা হয়। সাহারা বিশ্বের বৃহত্তম মরুভূমি; যা আফ্রিকার উত্তর অংশের প্রায় পুরোটা জুড়ে বিস্তৃত। সাহারার উত্তরে অবস্থিত অঞ্চলকে উত্তর আফ্রিকা বলা হয়। সাহারার দক্ষিণের অঞ্চলকে সাহারা-নিম্ন আফ্রিকা বলা হয়। সাহারা-নিম্ন আফ্রিকাকে অনেক সময় কৃষ্ণ আফ্রিকাও বলা হয়।

(সাহার-নিম্ন আফ্রিকাকে আবার পশ্চিম আফ্রিকা, পূর্ব আফ্রিকা, মধ্য আফ্রিকা এবং দক্ষিণাঞ্চলীয় আফ্রিকা অঞ্চলগুলিতে ভাগ করা হয়। পশ্চিম আফ্রিকার দেশগুলি হল বেনিন বুর্কিনা ফাসো ক্যামেরুন চাদ আইভরি কোস্ট ঘানা গিনি গিনি-বিসাউ লাইবেরিয়া মালি মৌরিতানিয়া নাইজার নাইজেরিয়া সেনেগাল সিয়েরা লিওন গাম্বিয়া এবং টোগো। পূর্ব আফ্রিকাতে আছে বুরুন্ডি জিবুতিইরিত্রিয়া ইথিওপিয়া কেনিয়া মালাউই মোজাম্বিক রুয়ান্ডা সুদান সোমালিয়া তানজানিয়া এবং উগান্ডা। মধ্য আফ্রিকাতে আছে অ্যাঙ্গোলা মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র বিষুবীয় গিনি গাবন, কঙ্গো প্রজাতন্ত্র গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র এবং জাম্বিয়া। দক্ষিণাঞ্চলীয় আফ্রিকার দেশগুলির মধ্যে আছে বতসোয়ানা লেসোথো নামিবিয়া দক্ষিণ আফ্রিকা সোয়াজিল্যান্ড এবং জিম্বাবুয়ে। আফ্রিকার দ্বীপরাষ্ট্রগুলির মধ্যে আছে আটলান্টিক মহাসাগরের কেপ ভার্দ এবং সাঁউ তুমি ও প্রিন্সিপি; ভারত মহাসাগরের কোমোরোস মাদাগাস্কার মরিশাস এবং সেশেল।)

  • Homo sapiens এর সবচেয়ে পুরাতন জীবাশ্মের সন্ধান পাওয়া গেছে আফ্রিকা মহাদেশের পূর্ব প্রান্তে।
  • আফ্রিকাতে ১,০০০০০ টির বেশি প্রজাতির পোকামাকড় রয়েছে। আফ্রিকার হাতিগুলো পৃথিবীর সবচেয়ে বড় হাতি এবং আফ্রিকার জিরাফগুলো সবচেয়ে লম্বা।

এক নজরে আফ্রিকাঃ

আয়তন – ৩০,২২১,৫৩২ বর্গ কিলোমিটার (১১,৬৬৮,৫৯৮ বর্গমাইল)

জনসংখ্যা – ১,০৩২,৫৩২,৯৭৪ জন

জনঘনত্ব – ৩০.৫১ জন প্রতি বর্গকিলোমিটারে

অধিবাসীদের নাম – আফ্রিকান

দেশের সংখ্যা – ৫৪

ভাষাসমূহ – ১২৫০ থেকে ৩০০০টির মত ভাষা রয়েছে।

সময় অঞ্চলসমূহ – ইউটিসি-১ থেকে ইউটিসি+৪

বৃহত্তম শহর – কায়রো (আয়তনে) এবং লেগোস (জনসংখ্যায়)

Article Categories:
বিশ্বজগৎ