অ্যানা ফ্রাঙ্ক সম্পর্কে কিছু তথ্য

by
May 29, 2016
519 Views
Comments Off on অ্যানা ফ্রাঙ্ক সম্পর্কে কিছু তথ্য

অ্যানালিস ম্যারি ফ্রাঙ্ক (সংক্ষেপে অ্যানা ফ্রাঙ্ক) ২য় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে ইহুদী নির্যাতনের স্বীকার  ব্যাক্তিদের অন্যতম। তিনি মূলত বিখ্যাত ২য় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন তার দিনলিপি/ডায়েরীটীর জন্য, যা এখন পর্যন্ত বিশ্বের অন্যতম পঠিত বই এবং অনেক চলচিত্র ও নাটকের মূল বিষয় হিসেবে গৃহীত। চলুন জেনে নেয়া যাক অ্যানা ফ্রাঙ্ক সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য-

  • অ্যানা ফ্রাঙ্কের জন্ম ১২ই জুন ১৯২৯ সালে জার্মানির ফ্রাঙ্কফুটে । পরবর্তি বছর নাৎসী বাহিনী ক্ষমতায় আসলে তার পরিবার নেদারল্যান্ডের আমস্টারডামে চলে যায়। (তথ্যসূত্র)
  • যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে অ্যানা ফ্রাঙ্ক এবং আরো সাতজন তার বাবার ব্যবসায়ের একটি ছোট এপার্টমেন্টে ২ বছর যাবত লুকিয়ে ছিলেন, যে এপার্টমেন্টটি এখন ‘সিক্রেট অ্যানেক্স’ নামে পরিচিত।(তথ্যসূত্র)
  • তিনি তার ডায়েরীর অধিকাংশ লেখাই ‘কিটি’ নামের কোন ব্যাক্তির কাছে চিঠি আকারে লিখেছিলেন। (তথ্যসূত্র)
  • তার ডায়েরীর অনেক লেখা বাদ দেওয়া হয়েছিল কেননা তিনি তার ব্যাক্তিগত অন্তরঙ্গ কথাও লিখেছিলেন। (তথ্যসূত্র)
  • কঠোর শরনার্থী নীতির কারণে যুক্তরাষ্ট্র অ্যানা ফ্রাঙ্কের পরিবারের ভিসা আবেদন বাতিল করে দেয়। (তথ্যসূত্র)
  • ইহুদী, ইসরায়েল বা ইহুদী মতবাদ প্রচার অনুকূল হওয়ায় তার ডায়েরীটি লেবাননে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। (তথ্যসূত্র)
  • ১ম বিশ্বযুদ্ধের সময় অ্যানা ফ্রাঙ্কের বাবা জার্মানির সেনাবাহিনীতে অফিসার হিসেবে ছিলেন। (তথ্যসূত্র)
  • অ্যানা ফ্রাঙ্কের স্বপ্ন ছিলো অভিনেত্রী হওয়ার। (তথ্যসূত্র)
  • অ্যানা ফ্রাঙ্কের মাও যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে অনাহারে মৃত্যবরণ করেন। (তথ্যসূত্র)
  • অ্যানা ফ্রাঙ্কের মৃত্যুর সঠিক সময় এবং কারণ এখনও জানা যায়নি। (তথ্যসূত্র)

 জনপ্রিয় সিরিজ “হ্যারি পটার” নিয়ে কিছু মজার তথ্য

Facebook Comments
Article Categories:
সেরা দশ